ন্যাভিগেশন মেনু

সরকার বস্ত্রখাতে অংশীজনদের সহায়তা দিতে সচেষ্ট:পাটমন্ত্রী


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার বস্ত্রখাতের উন্নয়নে সব ধরণের সহযোগিতা প্রদানে সদা সচেষ্ট রয়েছে বলে জানিয়েছেন বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী।

শনিবার (৪ ডিসেম্বর) বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে ‘জাতীয় বস্ত্র দিবস ২০২১’ উদযাপন উপলক্ষে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে আয়োজিত এক সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। 

পাটমন্ত্রী বলেন, একুশ শতক তথা চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় বস্ত্রখাতের সংশ্লিষ্ট অংশীজনদের সব ধরণের সহযোগিতা দেওয়া হবে।

তিনি বলেন, বস্ত্রখাতের জন্য দক্ষ মানবসম্পদ তৈরির লক্ষ্যে সরকারি পর্যায়ে টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ, টেক্সটাইল ইনস্টিটিউট, টেক্সটাইল ভোকেশনাল ইনস্টিটিউট, তাঁত প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট এবং ফ্যাশন ডিজাইন ইনস্টিটিউট পরিচালিত হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, বস্ত্রখাতে দক্ষ জনবলের ক্রমবর্ধমান চাহিদা মেটাতে এ ধরণের আরও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান স্থাপনের কাজ চলমান রয়েছে। বাংলাদেশের সোনালী ঐতিহ্য মসলিনকে বড় পরিসরে বাণিজ্যিক রূপদানের জন্য ‘ঢাকাই মসলিন হাউজ’ প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে।

সভায় বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মির্জা আজম, এমপি, বস্ত্র ও পাট সচিব মো. আব্দুর রউফ, মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোহাম্মদ আবুল কালাম, বস্ত্র অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. নুরুজ্জামান, বিজিএমইএ সভাপতি ফারুক হাসান এবং বিকেএমইএ, বিটিএমএ ও বস্ত্রখাতের সংশ্লিষ্ট অংশীজনদের প্রতিনিধিসহ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এ উপলক্ষে বিজিএমইএ, বিকেএমইএ, বিটিএমএ, বিজিবিএ, বিজিবিএ, বিএসটিএমপিআইএ, বিটিটিএলএমইএ ও বাংলাদেশ জাতীয় তাঁতী সমিতিকে সম্মাননাও প্রদান করা হয়। এর আগে সকালে জাতীয় বস্ত্র দিবস ২০২১ উদযাপন উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‌্যালী অনুষ্ঠিত হয় ।