NAVIGATION MENU

মাদ্রাসার ৭ শিশুকে বলাৎকার, অধ্যক্ষ পাকড়াও


কোমলমতি শিশুদের শিক্ষাদানের পরিবর্তে তিনি যৌনকাজেই ব্যস্ত থাকতেন। কিন্তু বেশিদিন চালাতে পারলেন না ধরা খেয়ে অবশেষে ঠাই হলো শ্রীঘরে।

দেশের প্রধানবন্দর নগর চট্টগ্রামের মুরাদপুরে সাত শিশুকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে মাদ্রাসার অধ্যক্ষ হাফেজ নাজিম উদ্দিনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

পাশাপাশি পুলিশ একইসঙ্গে ওই মাদ্রাসা থেকে উদ্ধার নিপীড়নের শিকার ছয় শিশুকে।গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে নগরীর পাঁচলাইশ থানার মুরাদপুরে রহমানিয়া তাহফিজুল কোরআন বালক-বালিকা একাডেমি মাদ্রাসায় অভিযান চালিয়ে পুলিশ অধ্যক্ষ হাফেজ নাজিম উদ্দিনকে গ্রেপ্তার করে।

পাঁচলাইশ থানার ওসি আবুল কাশেম ভূঁইয়া বলেন, মাদ্রাসায় এক শিক্ষার্থীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ পেয়ে সেখানে অভিযান চালায় পুলিশ। এসময় ১০-১২ বছরের আরও কয়েকজন শিক্ষার্থী যৌন নিপীড়নের অভিযোগ করে।

পরে নিপীড়নের শিকার ছয়জনকে উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি বলেন, এক শিশু আগেই অভিভাবকের মাধ্যমে থানায় অভিযোগ করেছিল। আরও কয়েকজন একইভাবে নিপীড়নের শিকার হয়েছে বলে আমরা জানতে পেরেছি। অভিযুক্ত মাদ্রাসা শিক্ষক নাজিমের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এস এস