NAVIGATION MENU

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন-২০২১ অনুষ্ঠিত


জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সার্বিক তত্ত্বাবধানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন-২০২১ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রবিবার (১০ জানুয়ারি) ভোর ৬টায় বনানীর আর্মি স্টেডিয়াম থেকে শুরু হয়ে রাজধানীর হাতিরঝিলে গিয়ে শেষ হয় এই ম্যারাথন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন-২০২১ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাহিদ আহসান রাসেল।

প্রতিযোগিতা শেষে হাতিরঝিলের এম্ফি থিয়েটারে পুরস্কার বিতরণ ও সমাপনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন।

ফুল ম্যারাথনে এলিট দৌড়বিদদের মধ্যে পুরুষ বিভাগে চ্যাম্পিয়ন হন মরক্কোর হিসাম লাকুজি এবং মহিলা বিভাগে চ্যাম্পিয়ন হন কেনিয়ার এঞ্জেলা জেম এ্যাসুনদে।

এ ছাড়াও ফুল ম্যারাথনে সার্ক ও দেশি দৌড়বিদদের মধ্যে পুরুষ বিভাগে চ্যাম্পিয়ন হন ভারতের বাহাদুর সিং এবং মহিলা বিভাগে চ্যাম্পিয়ন হন নেপালের পুস্পা ভান্ডারি।

হাফ ম্যারাথনে এলিট দৌড়বিদদের মধ্যে পুরুষ বিভাগে চ্যাম্পিয়ন হন কেনিয়ার এডুইন কিপ্রোপ এবং মহিলা বিভাগে চ্যাম্পিয়ন হন কেনিয়ার নাওম জেবেত। দেশি অংশগ্রহণকারী দৌড়বিদদের মধ্যে মোঃ ফারদিন মিয়া প্রথম স্থান অধিকার করেন।

ফুল ম্যারাথনে এবং হাফ ম্যারাথনে ১০০ জন করে সর্বমোট ২০০ জন দৌড়বিদ অংশগ্রহণ করেন। ম্যারাথনে অংশগ্রহণকারী  এলিট দৌড়বিদদের মধ্যে ফুল ম্যারাথনে ১১ জন পুরুষ, ৬ জন মহিলা, হাফ ম্যারাথনে ৩ জন পুরুষ এবং ৩ জন মহিলা অংশগ্রহণ করেন। এছাড়াও দৌড়বিদদের মধ্যে ফুল ম্যারাথনে ১২ জন পুরুষ এবং ৪ জন মহিলা দৌড়বিদ ম্যারাথনে অংশগ্রহণ করেন।

এ ম্যারাথনে ফ্রান্স, কেনিয়া, ইথিওপিয়া, বাহরাইন, বেলারুশ, লেসেথো, ইউক্রেন, স্পেন এবং মরক্কো থেকে ২৩ জন এলিট রানার এবং মালদ্বীপ, নেপাল ও ভারত থেকে ১২ জনসহ সর্বমোট ৩৫ জন বিদেশি দৌড়বিদ অংশগ্রহণ করেন।

প্রধান সমপানী বক্তব্যের শুরুতেই সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ বাংলাদেশের স্বাধীনতার মহান স্থপতি এবং সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। একই সাথে, করোনা মহামারির মাঝেও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন-২০২১ আয়োজন এবং দেশকে সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে নিয়ে যাবার জন্য তিনি প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

এ সময় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন-২০২১ বাংলাদেশের সর্বস্তরের জনসাধারনের মাঝে সামাজিক এবং স্বাস্থ্য সচেতনতা সৃষ্টি করবে বলে তিনি আশা করেন। প্রতিবছর ১০ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন আয়োজনের ব্যাপারে তিনি দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন-২০২১ এ অংশগ্রহণকারী সকল দেশি এবং বিদেশি অংশগ্রহণকারী অ্যাথলেট এবং এই আয়োজনকে সাফল্যমন্ডিত করার পেছনে সংশ্লিষ্ট সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন-২০২১ ম্যারাথন অ্যাসোসিয়েশন অব ইন্টারন্যাশনাল ম্যারাথন অ্যান্ড ডিসটেন্স রেসেস (এইমস) এবং আন্তর্জাতিক অ্যাথলেটিকস অ্যাসোসিয়েশনের (এএএ) কর্তৃক স্বীকৃত।

উল্লেখ্য, এ ডিজিটাল ম্যারাথন আগামী ০৭ মার্চ ২০২১ পর্যন্ত চলবে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন-২০২১ এর ওয়েবসাইট (www.dhakamarathon.com.bd) ভিজিট করে দৌড়বিদরা ডিজিটাল ম্যারাথনে অংশগ্রহণ করতে পারবেন। এ ম্যারাথনে অংশগ্রহণের জন্য ইতোমধ্যে প্রায় দেড় লাখ আবেদন পাওয়া গেছে। সর্বমোট ১০ লাখ আবেদনকারী এ ডিজিটাল ম্যারাথনে অংশ নিবেন বলে আয়োজনকারীরা আশা করছেন। কেবল বাংলাদেশেই নয়, সমগ্র বিশ্বের সকল প্রান্ত হতে উৎসাহী দৌড়বিদরা উল্লেখিত অ্যাপের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন-২০২১ এ অংশগ্রহণ করবেন বলে আশা করা যায়।

এস এ/এডিবি