NAVIGATION MENU

পদ্মাসেতুর ৩৮তম স্প্যান বসানো সম্পন্ন, দৃশ্যমান ৫৭০০ মিটার


পদ্মাসেতুর মাওয়া প্রান্তে ১ ও ২ নম্বর পিলারে ৩৮তম স্প্যান বসানো সম্পন্ন হয়েছে। এ স্প্যান বসানোর মধ্যদিয়ে দৃশ্যমান হলো পদ্মাসেতুর ৫ হাজার ৭০০ মিটার। ৩৭তম স্প্যান বসানোর ৯ দিনের মাথায় বসানো হলো এই স্প্যানটি।

শনিবার (২১ নভেম্বর) প্রায় ২ ঘন্টা চেষ্টায় দুপুর ২টা ৩৫ মিনিটের দিকে স্প্যানটি সফলভাবে বসানো হয়।

ছয় দশমিক ১৫ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের এ সেতুর ৪১টি স্প্যানের মধ্যে বাকি রইলো আর মাত্র তিনটি স্প্যান।

পদ্মাসেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান মো. আব্দুল কাদের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, সেতুর মাওয়া প্রান্তে ১ ও ২ নম্বর খুঁটির উপর ৩ হাজার ১৪০ টন ওজনের স্প্যানটি বসানো হয়েছে। এ স্প্যান বসানোর মধ্যদিয়ে চলতি মাসে তিনটি স্প্যান বসলো।

এ মাসে আরও একটি স্প্যান বসানোর কথা রয়েছে। সব পিলার ও স্প্যান প্রস্তুত থাকায় এখন দ্রুততম সময়ের মধ্যে স্প্যান বসানো সম্ভব হচ্ছে বলে জানান প্রকল্প পরিচালক।

এর আগে ৩৭তম স্প্যানটি বৃহস্পতিবার (১২ নভেম্বর) সেতুর ৯ ও ১০ নম্বর খুঁটিতে এবং ৩৬তম স্প্যানটি শুক্রবার (৬ নভেম্বর) সেতুর ২ ও ৩ নম্বর খুঁটিতে বসানো হয়েছিল।

সেতুর প্রকৌশল বিভাগ জানিয়েছে, ‘করোনা ও বন্যার কারণে স্প্যান বসানোর কার্যক্রমে ধীরগতি দেখা দিয়েছিলো। বর্তমানে পদ্মা নদীতে পানির গভীরতা অনুকূলে আসায় প্রকৌশলীরা স্প্যান বসানোর কাজে গতি এনেছেন।’

সেতু নির্মাণ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ‘চলতি মাসেই ১০ ও ১১ নম্বর খুঁটিতে ৩৯তম স্প্যান (স্প্যান ২-ডি) বসানোর কথা রয়েছে। এছাড়া, ২ ডিসেম্বর ১১ ও ১২ নম্বর খুঁটিতে ৪০তম স্প্যান (স্প্যান ২-ই) ও ১০ ডিসেম্বর সর্বশেষ ৪১তম স্প্যান (স্প্যান ২-এফ) ১২ ও ১৩ নম্বর খুঁটিরওপর বসানোর পরিকল্পনা রয়েছে।’

আর মাত্র ৩টি স্প্যান বসানো হলেই ৬ হাজার ১৫০মিটার দৈর্ঘ্যের পদ্মাসেতু তার পূর্ণাঙ্গ কাঠামো পাবে। দৃশ্যমান হবে শতভাগ। এরপর চলবে রেল ও সড়ক স্ল্যাব বসানোর কাজ।

মহান বিজয় দিবসের আগেই সবগুলো স্প্যান বসানোর কাজ শেষ হবে বলে আশা প্রকাশ করছেন কর্তৃপক্ষ। এ বহুমুখী সেতু আগামী ২০২১ সালে খুলে দেওয়া হবে।

২০১৪ সালের ডিসেম্বরে পদ্মাসেতুর নির্মাণ কাজ শুরু হয়। মূল সেতু নির্মাণের জন্য কাজ করছে চিনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি (এমবিইসি) ও নদী শাসনের কাজ করছে দেশটির আরেকটি প্রতিষ্ঠান সিনো হাইড্রো করপোরেশন।

এমআইআর/এডিবি