NAVIGATION MENU

নাটোরে ১১ দোকানে ডাকাতির ঘটনায় গ্রেপ্তার ৫


নাটোরের বাগাতিপাড়ায় গত ২১ জানুয়ারি ১১টি দোকানে ডাকাতির ঘটনায় পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ সময় ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত একটি ট্রাক জব্দ করা হয়।

সোমবার (৩ মে) দুপুরে নাটোরের পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা এসব তথ্য জানান। এ ঘটনায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন দু’জন।

এর আগে রবিবার (২ মে) রাতে দু’জন আসামীর স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে নাসের, শাহীন আলম ও সেলিমকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তাররা হলো, বগুড়ার দুপচাচিয়ার ছোট বেড়াগাঁও গ্রামের আব্দুল মান্নানের ছেলে আব্দুর রহমান (৩৮), নওগাঁ সদরের বিল ভাবনীপুর গ্রামের মৃত গণি মণ্ডলের ছেলে শাহজাহান মণ্ডল (৩৮), সারাইল গ্রামের মৃত তমিজ মোল্লার ছেলে নাসের (৫৫), রাজশাহীর বাঘা উপজেলার ধন্দহ গ্রামের গোলজার হোসেনের ছেলে সেলিম (২২) ও বাগমারা উপজেলার ফুলপুর গ্রামের আমিরুল ইসলামের ছেরে শাহীন আলম (২৭)।

পুলিশ সুপার বলেন, গত ২১ জানুয়ারি বাগাতিপাড়ার তমালতলা বাজারে দুই নৈশপ্রহরীকে বেঁধে রেখে ১১টি দোকানে ডাকাতি করা হয়। এ ঘটনায় অজ্ঞাতনামা ১০-১৫ জনকে অভিযুক্ত করে মামলা হয়।

তিনি আরও বলেন, তথ্য প্রযুক্তির সহায়তা রাহশাহী ও নাটোর জেলা কারাগার থেকে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে নওগাঁর শিকারপুর ইউনিয়নের শুকুরের মোড় থেকে আব্দুর রহমান ও বিল ভবানীপুর গ্রাম থেকে শাহাজাহান মণ্ডলকে গ্রেপ্তার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে তারা ডাকাতির ঘটনা স্বীকার করেন। তাদের স্বীকারোক্তিতে বাকি ওই তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।এছাড়া নওগাঁর হাতিমারার বিল থেকে ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত একটি তিন টনের ট্রাক জব্দ করা হয়।

জিজ্ঞাসাবাদে ডাকাতরা জানান, ১২ জন মিলে তমালতলা বাজারে ডাকাতি করে সেগুলো বিক্রি করে তারা ১০ হাজার টাকা করে ভাগে পেয়েছেন।

সিবি/এডিবি/