NAVIGATION MENU

দক্ষিণ সুদানে শান্তিরক্ষীদের জাতিসংঘ মেডেল প্রদান


দক্ষিণ সুদানের ওয়াও সুপার ক্যাম্পে ব্যানব্যাট-৩ এর শান্তিরক্ষীদের গত এক বছরের শান্তিরক্ষা কর্মকাণ্ডের  স্বীকৃতিস্বরূপ ‘জাতিসংঘ মেডেল’ প্রদান প্যারেড গত ১০ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হয়। 

দক্ষিণ সুদানে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমের (আনমিস) প্রধান এবং জাতিসংঘ মহাসচিবের বিশেষ প্রতিনিধি ডেভিড শিয়েরার প্রধান অতিথি হিসেবে প্যারেড পরিদর্শন করেন । 

তিনি ১৯ জন নারী শান্তিরক্ষীসহ ৮৬১ জন বাংলাদেশী শান্তিরক্ষীকে তাদের গত এক বছরের অসামান্য কৃতিত্বপূর্ণ অবদানের জন্য জাতিসংঘ মেডেল পরিয়ে দেন।

প্রধান অতিথি তাঁর বক্তৃতায় সকল প্রতিকূলতা অতিক্রম করে ব্যানব্যাট-৩ এর অনন্য সাধারন অবদানের জন্য অভিনন্দন জানান এবং ভূয়সী প্রশংসা করেন।

তিনি বলেন ‘আমি জাতিসংঘ মহাসচিব  আন্তোনিও গুতারেস এর পক্ষ থেকে অত্যন্ত আনন্দের সাথে আপনাদের অসামান্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ পদক প্রদানের ঘোষনা করছি। আপনারা জাতিগত সংঘাতপূর্ণ টঞ্জ, ম্যাপেল ও কজেনা এলাকায় অনেক নিরাপরাধ জনগণ বিশেষ করে নারী ও শিশুদের জীবন বাঁচিয়েছেন। করোনা মহামারির মধ্যেও দায়িত্ব পালনে আপনাদের অবিরাম প্রচেষ্টা ও কর্মতৎপরতা আমি সশ্রদ্ধচিত্তে স¥রণ করছি।’

এছাড়াও তিনি ব্যানব্যাট এর সাথে সংযুক্ত ফিমেল  এনগেইজমেন্ট টিমের অসাধারন কর্মকান্ডের ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন ‘‘ব্যানব্যাট-৩ এর নারী শান্তিরক্ষীগণ দক্ষিণ সুদানে শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে এক নতুন দিগন্ত উন্মোচন করেছেন’’। তিনি ব্যানব্যাট-৩ এর জনকল্যাণমুলক কর্মকান্ডের ফলে স্থানীয় জনগণের দুঃখ দূর্দশা লাঘব এবং দীর্ঘমেয়াদী  শান্তিস্থাপনে অনন্য সাধারন দৃষ্টান্তস্থাপনের প্রশংসা করেন।

উক্ত মেডেল প্যারেড অনুষ্ঠানে দক্ষিণ সুদানে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে নিয়োজিত ঊধর্¡তন সামরিক,অসামরিক কর্মকর্তাবৃন্দ এবং দক্ষিণ সুদান সেনাবাহিনীর ঊধর্¡তন সেনা কর্মকর্তাবৃন্দ ও অন্যান্য গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

ওআ/