NAVIGATION MENU

কুয়াং সি হুয়ান চিয়াং জেলার মাও নান জাতির সুখী জীবন


মাও নান চিনের একটি অন্যতম সংখ্যালঘু জাতি। এ জাতির জনসংখ্যা ৩ লাখেরও কম। কুয়াং সি চুয়াং স্বায়ত্তশাসিত এলাকার উত্তর-পশ্চিমঞ্চলের হুয়ান চিয়াং জেলা চিনের একমাত্র মাও নান স্বায়ত্তশাসিত জেলা এবং মাও নান জাতি অধ্যুষিত বৃহৎ এলাকা। পুরো জেলায় মাও নান জাতির লোকসংখ্যা সাড়ে ৬৪ হাজার, তার মানে মাও নান জাতির প্রায় ৭০ শতাশং মানুষ এখানে বাস করেন। ২০২০ সালের মে মাসে হুয়ান চিয়াং জেলা এবং মাও নান জাতি দারিদ্র্যমুক্ত হয়েছে।


থান লি হুয়ান মাও নান জাতির একজন মেয়ে। তিনি বলেন, “আগে আমরা পাহাড়ে বাস করতাম। সেখানে বিদ্যুৎ ও চলাচলের ভালো পথ ছিল না। স্কুল বা বাজারে যেতে চাইলে কয়েক ঘন্টা হেঁটে যেতে হতো।”


থান লি হুয়া এখন হুয়ান চিয়াং জেলার ছেন সুয়াং গ্রামে বাস করেন। তিনি ও তার পরিবার ‘স্থানান্তরিত হয়ে দারিদ্র্যবিমোচন নীতি’ থেকে উপকৃত হন। প্রাকৃতিক পরিবেশের উপর নির্ভর নিজেদের দারিদ্র্য দূর করতে পারেনা, সেখানকার এমন লোকজনকে স্থানীয় সরকার অন্য একটি জায়গায় স্থানান্তর করে। এখন থান লি হুয়ান পাহাড়ের বাইরে এসেছেন, দারিদ্র্যকে জয় করেছেন এবং একটি নারী ড্রাগন নৌকা দলে যোগ দিয়েছেন। তিনি দেশ ও বিদেশে নানা প্রতিয়োগিতায় অংশ নিয়েছেন এবং অনেক পদক অর্জন করেছেন।


২০২০ সালের মে মাসে চিনের প্রেসিডেন্ট সি চিন পিং মাও নান জাতির মানুষের দারিদ্র্যমুক্তি এবং তাদের জীবনযাত্রার ব্যাপারে খোঁজ-খবর নেন। তাদের জীনবযাত্রার উন্নত হয়েছে শুনে তিনি খুব খুশি হন। তিনি বলেন, সাম্প্রতিক বছরগুলোতে অনেক সংখ্যালঘু জাতির মানুষ দারিদ্র্যমুক্ত হয়েছে এবং এটা দারিদ্র্যবিমোচন কাজের সবচেয়ে বড় সফলতা। আশা করা যায় দারিদ্র্যমুক্তির নতুন সূচনা হিসেবে আরও সুন্দর ও সুখী জীবনের উদ্দেশ্যে এগিয়ে যাবে তারা।


দারিদ্রমুক্ত হুয়ান চিয়াং জেলাও অনেক কোম্পানির দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। জেলায় নির্মিত হয়েছে একটি শিল্পপার্ক। সেখানে একটি স্মার্ট টার্মিনাল এবং সফটওয়্যার কোম্পানি ১০০ কোটি ইউয়ান বিনিয়োগ করে নিজেদের ব্যবসা প্রসারিত করছে। কোম্পানির মহাব্যবস্থাপক গণমাধ্যমকে জানান, তার কোম্পানি ৩ হাজারের বেশি কর্মী নিয়োগ করবে এবং এর বার্ষিক উৎপাদনের পরিমাণ ৩০০কোটি ইউয়ান ছাড়িয়ে যাবে। এটা মাও নান জাতির মানুষদের অর্থনৈতিক উন্নয়নে সহায়তা করবে।


তিনি বলেন, ‘আমাদের কারখানা সম্প্রসারণ করছি। আমরা প্রথমে দরিদ্র পরিবারের মানুষ নিয়োগ করব। হুয়ান চিয়াং জেলার পরিবেশ ভালো এবং তার উন্নয়নের সম্ভবনা অনেক বেশি।’


ওয়ে লান চেন এক সময় কুয়াং তুং প্রদেশে কাজ করেছেন এবং এখন তিনি গ্রামে ফিরে এসে এ কোম্পানিতে যোগ দিয়েছেন। তিনি বলেন, বিয়ে করার পর তিনি গ্রামে ফিরে এসেছেন। এখানে কাজ করলে পরিবারের প্রবীণ ও শিশুদের যত্ন নিতে পারেন তিনি।


দারিদ্র্য বিমোচনের জন্য বুদ্ধি প্রয়োজন। তাই হুয়ান চিয়াং জেলা শিক্ষার উপর বেশ গুরুত্ব দেয়। ‘হুয়া চিয়াং সি ইউয়ান পরীক্ষামূলক স্কুল’ হলো হংকংয়ের একটি তহবিল, শেন চেন শহরের ফু থিয়ান এলাকার সরকার এবং হুয়ান চিয়াং জেলার যৌথ উদ্যোগে নির্মিত একটি বাধ্যতামূলক স্কুল। স্কুলটির শিক্ষক বলেন, ‘দারিদ্র্যমুক্তি একটি সূচনা মাত্র। আমরা এর ভিত্তিতে শিশুদের জন্য ভাল শিক্ষা প্রদান করব। তারা বড় হলে মাও নান জাতির উন্নয়ন এবং দেশের সমৃদ্ধি গড়ে তোলায় আরও বেশি অবদান রাখতে পারবে।’


মাও নান জেলার উপপ্রধান ইউয়াং পো বলেন, যদিও মাও নান জাতি দারিদ্র্যমুক্ত হয়েছে, তবে আরও কাজ করতে হবে। প্রেসিডেন্ট সি চিন পিংয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী ভবিষ্যতে সরকারের নীতি, সহায়তা ও তত্ত্বাবধান অব্যাহত থাকবে। দারিদ্র্য বিমোচনের সফলতাকে সুসংহত করে আরও উন্নয়ন করতে হবে।